ই-পেপার | বুধবার , ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তালতলীতে জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর নির্মাণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

হায়দার হাওলাদার,বরগুনা তালতলী প্রতিনিধি:

বরগুনার তালতলী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছোট ভাইজোড়া গ্রামে জোরপূর্বক জমি দখল করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী মো. ইসমাইল মৃধা জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবিতে সম্মেলন করেছেন। বুধবার ২ আগস্ট তালতলী সাংবাদিক ক্লাবে লিখিত সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি ।

 

লিখিত সংবাদ সম্মেলনে মো. ইসমাইল মৃধা বলেন, ছোট ভাই জোড়া এলাকার মৃত আলী আকবর মৃধার ছেলে মো. ইসমাইল মৃধা প্রায় ৫০ বছরের বেশি জমি ভোগ দখল করে আসছেন। অপরদিকে একই এলাকার শেরজন হাওলাদারের ছেলে ভূমি দখলকারী ও প্রভাবশালী মো. বাবুল (৩৫) মো. সিদ্দিক (৩০) মো. জহিরুল ও নুর ইসলামের ছেলে আল আমিন (৩২) ৩৩ শতাংশ জমি দখলের চেষ্টা করে। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে শালিসের মাধ্যমে কিছুদিন থেমে থাকলেও পুনরায় জোরপূর্বক ঘর নির্মাণের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে বাবুল ও তার লোকজন।

 

ভুক্তভোগী ইসমাইল মৃধা বলেন, আমার জায়গায় জোর করে ঘর উঠানোর জন্য কাঠ ও টিন সহ অন্যান্য মালামাল নিয়ে এসেছে বাবুল ও তার লোকজন। এসময় আমি বাধা দিলে বাবুল আমাকে গালিগালাজ করে এতে আমি উত্তর দেওয়ার সাথে সাথে বাবুল ও তার লোকজন আমাকে এলোপাথারি থাপ্পর, কিল ও ঘুসি মারে। আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলা ফুলা জখম করে আমার সাথে থাকা ৪৩ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে যায়। পরে আমার ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে ভূমিদস্যু বাবুলের হাত থেকে আমাকে প্রাণে বাচায়।

 

এ ঘটনায় বুধবার ভুক্তভোগী মো. ইসমাইল মৃধা আইনগত সহায়তা পাওয়ার জন্য তালতলী থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

তালতলী থানার উপ পরিদর্শক এসআই মো. মাহাবুব ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অন্যের জমিতে জোরপূর্বক ঘর উঠানোর অভিযোগের সত্যতা পান। পরো তিনি উভয়পক্ষকে থানায় ডাকেন।

 

এ বিষয়ে তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহিদুল ইসলাম মিলন বলেন, ইসমাইল মৃধা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। পরে থানা থেকে পুলিশ পাঠানো হয়েছে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪