ই-পেপার | বুধবার , ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কক্সবাজারে নানা আনুষ্ঠানিকতায় আন্তর্জাতিক বন দিবস পালিত 

কক্সবাজার অফিস :

করবো বন সংরক্ষণ, সুস্থ থাকবো সারাক্ষণ- এই স্লোগানে কক্সবাজারে আন্তর্জাতিক বন দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সংগঠনগুলো মানববন্ধন ও আলোচনা সভা করে।

 

২১ মার্চ বিকেলে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের হিমছড়িতে নিসর্গ চত্বরে প্রথমে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ধরিত্রী রক্ষায় আমরা-ধরা, ওটারকিপার্স বাংলাদেশ ও ব্লু প্ল্যানেট ইনিশিয়েটিভ ও গ্রিন কক্সবাজার’র যৌথ উদ্যােগে আয়োজিত মানববন্ধনের প্রথম সারিতে ছিলেন ধরা-র কক্সবাজার জেলা আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল কাদের চৌধুরী, যুগ্ম আহবায়ক সাংবাদিক ফরিদুল আলম শাহীন ও তৌহিদ বেলাল।

এছাড়াও অংশ নেন, ধরা-র কক্সবাজার জেলা নির্বাহী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার কানন পাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মতিন আযাদ, ডিএম রুস্তম ও সমীর পাল।পরে হিমছড়ি নিসর্গ অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভা ফজলুল কাদের চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক তৌহিদ বেলাল এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

 

এতে প্রধান অতিথির আলোচনা পেশ করেন কক্সবাজার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও উত্তরণ মডেল কলেজের প্রিন্সিপাল প্রফেসর একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী।অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) সারওয়ার আলম।

 

বিশেষ অতিথি ছিলেন- ধরা-র কক্সবাজার জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক সাংবাদিক এইচএম ফরিদুল আলম শাহীন, সদস্যসচিব ও কোস্ট ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সদস্য ইঞ্জিনিয়ার কানন পাল ও অ্যাডভোকেট আবু মুহাম্মদ মুসা।এছাড়াও বক্তব্য দেন জেলা কমিটির সদস্য শামশুল আলম শ্রাবণ ও ইয়াছমিন মুন্নী ও মুহাম্মদ হাসান।

 

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য টিকিয়ে রাখার জন্য বাংলাদেশের প্রাকৃতিক বন, সামাজিক বন এবং উপকূলীয় প্যারাবন রক্ষা জরুরি।

 

তাঁরা বলেন, বন বা বৃক্ষরাজি আমাদেরকে যেমন অক্সিজেন দেয় তেমনি জলবায়ুর পরিবর্তনের সংকটময় মুহূর্তে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে। বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাবে উপকূলে উষ্ণায়ন ও দুর্যোগের কবল থেকে দ্বীপবাসীর সুরক্ষায় উপকূলজুড়ে সবুজবেষ্টনী গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন এবং দ্বীপের রক্ষাকবচখ্যাত সবুজ প্যারাবন রক্ষায় বন বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানান। পাশাপাশি বিশ্ব বনদিবসে বৃক্ষের প্রতি যত্নশীল হওয়া এবং বৃক্ষরোপন কর্মসূচি ও বনায়ন রক্ষা জোরদার করার অঙ্গিকার করেন তাঁরা।

 

আলোচনা সভায় হিমছড়ি বিট কর্মকর্তা কামরুজ্জামান শোভন, ধরা-র সদস্য মোহাম্মদ আমিনউল্লাহ, ফয়সাল সাকিব, মিজানুর রহমান, উম্মে আলেয়া সুলতানা মুক্তা, মুহাম্মদ রিদওয়ান, উম্মে হাবিবা শিরু, রাসেল তালুকদারসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।