ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গৃহকর্মীকে ৯তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ, গৃহকর্ত্রী আটক

ঢামেক প্রতিবেদক

রাজধানীর রূপনগর আরামবাগ এলাকায় তামান্না আক্তার (১৮) নামে এক গৃহকর্মীকে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে ৯তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে গৃহকর্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহকর্ত্রী মৌকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে রূপনগর থানা পুলিশ।

শুক্রবার (২৩ জুন) সকাল পৌনে ছয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এসময় গুরুতর আহত অবস্থায় দ্রুত তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। ঢামেকের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা চলছে। তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে দায়িত্বরত চিকিৎসক জানিয়েছেন।

ওই ভবনের কেয়ারটেকার সাইফুল ইসলাম জানান, রূপনগর আরামবাগ আবাসিক এলাকার বি-ব্লকের ৪০ নম্বর বাসার ৯ তলায় থাকেন সোহেল এবং তার স্ত্রী মৌ। প্রায় ৪-৫ বছর যাবত তামান্না কাজের মেয়ে হিসেবে ওই ফ্ল্যাটে থাকে। সকালে আমি ঘুম থেকে ওঠার পর কিছু একটা ওপর থেকে পড়ার শব্দ পাই। পরে গেট খুলে রাস্তায় বের হলে পাশের বাড়ি থেকে একজন আমাকে বলে তোদের বাসার ওপর থেকে কে যেন নিচে পড়ে গেছে। পরে আমি বাড়ির বাম পাশে গিয়ে দেখি নবম তলার কাজের মেয়ে তামান্না আক্তার নিচে পড়ে আছে। এরপর আমি নবম তলার ফ্ল্যাটের মালিককে ইন্টারকমে খবর দেই। খবর শুনে নবম তলার ফ্ল্যাটের মালিক সোহেল নিচে আসেন। এরপর তামান্নাকে দ্রুত উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পরে আমি জানতে পারি, নয় তলার ফ্ল্যাট মালিকের স্ত্রী মৌকে পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, তামান্নার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের কলমাকান্দায়। তার বাবার নাম নিজাম মিয়া।

জ্ঞান ফেরার পরে রাত সাড়ে আটটার দিকে গুরুতর আহত গৃহকর্মী তামান্না বলেন, আমি যাদের বাসায় কাজ করি সেই মৌকে আমি আন্টি বলে ডাকি। কাজকর্মে একটু দেরি হলেই মৌ আন্টি আমাকে প্রায় মারধর করত। কয়েকদিন আগে তিনি অভিযোগ তুলেন, আমি নাকি তার ৫ হাজার টাকা চুরি করেছি। এই নিয়ে প্রায়ই তার সঙ্গে আমি তর্ক করতাম। আমি গরিবের মেয়ে হতে পারি, কিন্তু টাকা পয়সা চুরি করিনি। আমি কেন মিথ্যা অপবাদ সইবো, তাই প্রতিবাদ করতাম। আজ সকালে আমি বারান্দায় গিয়ে দাঁড়ালে আন্টি আমাকে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দেয়। এরপর আমার কোনও কিছুই মনে নেই।

 

গুরুতর আহত অবস্থায় বেডে শুয়ে তামান্না তার মুখে লাগানো অক্সিজেন নিজ হাতে খুলে এই প্রতিবেদককে ঘটনার বিষয়টি খুলে বলেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ জন্য গৃহকর্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। আহত ওই গৃহকর্মীকে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪