ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে : জাহাঙ্গীর আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচারণাকালে বাধা, তার গাড়ি ভাঙচুর, কর্মীদের মারধরের ঘটনার প্রতিবাদে গাজীপুরে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী টেবিল ঘড়ি প্রতীকের প্রার্থী জায়েদা খাতুন।

শুক্রবার দুপুরে নগরীর তার ছয়দানার বাসভবন প্রাঙ্গণে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জায়েদা খাতুন বক্তব্য রাখেন। এ সময় তার নির্বাচনী এজেন্ট সাবেক মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের জায়েদা খাতুন বলেন, আমাদের উপর অন্যায়ভাবে হামলা করা হচ্ছে। আমার গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার দাবি করছি। ভোটাররা যেন নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে সে জন্য ভোটারদের নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু ভোটের জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করে বলেন, নগরীর প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে আমাদের নেতাকর্মীরা যখন প্রচার-প্রচারণা করে তখন প্রতিটি নেতাকর্মীদের বিভিন্নভাবে কৌশলে বাধা দিচ্ছে। আজমতউল্লা তার নিজস্ব ও দলীয় কিছু সন্ত্রাসী লোক দিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের হয়রানি করছেন।

তিনি অভিযোগ করেন প্রশাসনের কিছু লোক আছে যারা এলাকাভিত্তিক দায়িত্ব পালন করেন, তারা আমার কর্মীদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে এবং মোবাইলে তাদের ভয় দেখাচ্ছে। অনেকের কাছ থেকে টাকাও নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তারা আজমতউল্লা খানকে ভোট দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিচ্ছে।

তিনি বলেন, নগরীর কোন স্থানে পোস্টার লাগাতে দেওয়া হচ্ছে না। আবার লাগালেও সেগুলো ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা যদি সুষ্ঠু ভোট করতে না পারেন তবে সব প্রার্থীদের ডেকে বলেন আমরা প্রার্থিতা ছেড়ে দিই। আপনারা ভোটকে অসম্মান করবেন না। জনগণ যাকে ভোট দেবে রায়টা যেন তার পক্ষেই যায়।

তিনি বলেন, গত চার দিন ধরে টঙ্গীতে আজমতউল্লা তার নিজস্ব লোক দিয়ে আমাদের উপর হামলা ও নির্বাচনের প্রচারণায় বাধা প্রদান করছে। তারা আমাকে ও আমার মাকে হত্যা করতে চেয়েছে। আমাদের উপর অন্যায়ভাবে আক্রমণ করা হয়েছে।