ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

স্বামীকে গাছে বেঁধে স্ত্রীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালী

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে স্বামীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে নববধূকে ধর্ষণের মামলার এজাহারভুক্ত আনোয়ার হোসেন রিয়াদ (৩০) ও জালাল উদ্দিন (২৮) নামের দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২০ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার মুছাপুর সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসমিরা হলেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের একরামুল হকের ছেলে রিয়াদ ও মুছাপুর ক্লোজারের রেগুলেটর মোড়ের আলাউদ্দিনের ছেলে জালাল উদ্দিন। তবে এ মামলার প্রধান আসামি মুছাপুর ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের নুর নবীর ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৫) পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই নবদম্পতি গত ১৪ জুন (বুধবার) সকাল ৯টার দিকে সুধারাম থানার নোয়াখালী ইউনিয়ন থেকে মুছাপুর রেগুলেটর এলাকায় ঘুরতে যান। স্লুইসগেট এলাকায় বনবিভাগের বাগানের পাশের রাস্তায় দাঁড়িয়ে তারা ছবি তুলছিলেন। এ সময় জাহাঙ্গীর, রিয়াদ ও জালাল ছুরি দিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে নবদম্পতিকে আটক করে। পরে স্বামীকে মারধর করে গামছা দিয়ে গাছে বেঁধে নববধূকে বনবিভাগের বাগানে নিয়ে জাহাঙ্গীর ও রিয়াদ ধর্ষণ করে। ওই সময় গৃহবধূর স্বামীকে পাহারা দেয় জালাল। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত রোববার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ থানায় তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন নববধূর স্বামী।

কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান ঢাকা পোস্টকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, রিয়াদ ও জালালকে বিচারিক আদালতে সোপর্দ করা হবে। এছাড়া ঘটনার সঙ্গে জড়িত পলাতক অপর আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪