ই-পেপার | সোমবার , ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বড় ভাইকে খুনের ২২ বছর পর ধরা পড়লেন তিনি

নিজস্ব প্রতিবেদক 

ছোট ভাইয়ের বল্লমের আঘাতে বড় ভাই খুনের ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি আমির হামজাকে (৫২) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এর আগে গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি বাইশ বছর পলাতক ছিলেন। শনিবার (২৭ মে) বিকেলে র‌্যাব-১১ এর মিডিয়া অফিসার সিনিয়র এএসপি মো. বিজওয়ান সাঈদ জিকু এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্য জানান।

এর আগে শুক্রবার (২৬ মে) সোনারগাঁয়ের কিউট পল্লী এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আসামি আমির হামজা সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর মঞ্জিল খোলা এলাকার মানিক মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব জানায়, বড় ভাই জয়নাল আবেদীন তিনটি বিয়ে করেছিলেন। তবে তিন স্ত্রীর কোনো স্ত্রীর সঙ্গেই তার সংসার বেশী দিন স্থায়ী হয়নি। পরবর্তীতে জয়নাল আবেদীন চতুর্থ বিয়ে করলে তার প্রথম স্ত্রীকে তার ছোট ভাই আমির হামজা ফুসলিয়ে বিয়ে করেছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। সেই বিরোধের জেরে ২০০১ সালের ২৩ জানুয়ারি আমির হামজার বল্লমের আঘাতে জয়নাল আবেদীন নিহত হন।

পরবর্তীতে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানায় আসামি আমির হামজার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার পর থেকেই আমির হামজা পলাতক ছিলেন। ঘটনার ২২ বছর পর নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ (প্রথম) আদালতের বিচারক উম্মে সরাবন তাহুরা ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণের পর আমির হামজাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন। পলাতক থাকায় আসামির অনুপস্থিতিতেই রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ের পর র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে তার অবস্থান শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে সোনারগাঁ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

এইচ এম কাদের সিএনএন বাংলা২৪