ই-পেপার | মঙ্গলবার , ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সোনাইছড়ি ঝরনায় আটকে পড়া ১৫ শিক্ষার্থী উদ্ধার

সিএনএনবাংলা২৪,ডেস্ক:

চট্টগ্রাম: মীরসরাইয়ের ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের সোনাইছড়ি ঝরনা দেখতে গিয়ে আটকে পড়া ১৫ শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করেছে মীরসরাই ফায়ার সার্ভিস ও থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৭ জুন) সকালে চট্টগ্রাম শহর থেকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী আটকা পড়েন।

পরবর্তী জাতীয় জরুরি সেবা নম্বরে (৯৯৯) ফোন পেয়ে গহিন পাহাড় থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।
উদ্ধার হওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন- বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) অয়ন চৌধুরী, সৌম্য বিশ্বাস, অর্ণব দাশ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইশা, ঐশী, দিবা, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) রাজদীপ, দেবজ্যোতি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের জুঁই, অদ্বিতীয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুণম বড়ুয়া, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্কন দাশ, নীলাঞ্জনা, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌমিক, গ্রীন হেরাল্ড স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী অর্পা চৌধুরী।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) অয়ন চৌধুরী বলেন, মঙ্গলবার সকালে বন্ধুরা মিলে সোনাইছড়ি ঝরনা দেখতে যাই। দুপুরে বৃষ্টি শুরু হলে পাহাড়ি পথ পিচ্ছিল হয়ে ঝিরি পথে হাঁটা কষ্টসাধ্য হয়ে যায়। পরবর্তীতে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আমাদের উদ্ধারে সহায়তা করে।

মীরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন সিএনএন বাংলা২৪কে বলেন, সোনাইছড়ি ঝরনা দেখতে আসে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫ শিক্ষার্থী। পরে হঠাৎ দুপুরের দিকে অঝোরে বৃষ্টি শুরু হলে পাহাড়ের গহিনে আটকে পড়ে তারা। এ সময় জাতীয় জরুরি সেবা নম্বরে ৯৯৯ ফোন দিয়ে মীরসরাই থানা পুলিশের সহযোগিতা চান তারা। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা প্রায় ৪ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করেন।

মীরসরাই ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা ইমাম হোসেন পাটোয়ারি সিএনএন বাংলা২৪কে বলেন, সোনাইছড়ি ঝরনা দেখতে গিয়ে আটকে পড়া ১৫ জন পর্যটককে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। মিরসরাই থানার মাধ্যমে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এইচ এম কাদের,সিএনএনবাংলা২৪