ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাঁশখালীতে বটগাছ উপড়ে প্রধানসড়কে, ২ ঘন্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক

শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের বাঁশখালী-আনোয়ারার-পেকুয়া সংযোগ আঞ্চলিক সড়কের বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের সাহেবের হাঁট সংলগ্ন প্রধান সড়কের উপর বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো হাওয়ার প্রভাবে বটগাছ উপড়ে পড়ে থাকার কারণে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বটগাছটি রাস্তার উপর থেকে অপসারণ করতে প্রায় ২ ঘণ্টা সময় লাগে।

শনিবার (১৭ জুন) বেলা ৩ টার দিকে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। প্রচন্ড ঝড়ো হাওয়ার প্রভাবে সাধনপুর সাহেবের হাঁট এলাকায় প্রায় ৬০-৭০ বৎসরের পুরানো বড় বটগাছটি পড়ে যায় বাঁশখালীর আঞ্চলিক প্রধান সড়কে। এদিন দুপুর ১টার সময় গাছটি পড়ে যায় বলে স্থানীয়রা জানায়।

এ কারণে বাঁশখালী থেকে চট্টগ্রাম শহরগামী ও চট্টগ্রাম থেকে বাঁশখালীগামী যাত্রীবাহী বাস, সিএনজি, অ্যাম্বুলেন্সসহ সড়কের দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন যাত্রী সাধারণ। বাঁশখালী উপজেলার গুনাগরি পুলিশ ফাঁড়ি, ফায়ার সার্ভিস টিম ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগীয়তায় উপড়ে যাওয়া বটগাছটি অপসারণ করতে সময় লাগে প্রায় ২ ঘণ্টা।

এ বিষয়ে বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. আযাদুল ইসলাম জানান, বাঁশখালীতে প্রচন্ড ঝড়ো হাওয়ার কারণে সাধনপুর সাহেবের হাঁটে বড় বটগাছটি পড়ে যায়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌছি। বেলা ৩ টার দিকে গাছ কেটে অপসারণের পর সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক রয়েছে। এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কে. এম সালাহ উদ্দিন কামাল, গুনাগরি পুলিশ ফাঁড়ি ও আমাদের ফায়ার সার্ভিস টিম কাজ করে। দীর্ঘ দু’ঘন্টা পর সবার সহযোগীতায় বটগাছটি অপসারণ করা হয়।

 

 

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪: