ই-পেপার | মঙ্গলবার , ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

’বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৬ দফাই ছিলো বাঙ্গালীর মুক্তির সনদ’

বার্তা পরিবেশক:

পূর্ব বাংলার মানুষের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক, ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক বৈষম্য দূরীকরণের ক্ষেত্রে ৬ দফা আন্দোলনের ভূমিকা অপরিসীম উল্লেখ করে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ছয় দফা আন্দোলন আকস্মিকভাবে গড়ে ওঠা কোন আন্দোলন নয়।

১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর থেকে পুর্ব বাংলার মানুষের প্রতি পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকচক্র অন্যায়ভাবে যে সীমাহীন অত্যাচার, নিপীড়ন ও বৈষম্যমূলক নীতি গ্রহণ করেছিলো তারই প্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছয় দফা আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন। মহান নেতার সেই ডাকেই আজকের উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। তাই বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ছয় দফা দাবি থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হওয়ার জন্য তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

বুধবার বিকেলে কক্সবাজার শহরের লালদিঘির পাড়ের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম, লে. কর্নেল ফোরকান আহমেদ, অ্যাডভোকেট রনজিত দাশ, অ্যাডভোকেট মমতাজ আহমদ, সোহেল আহমদ বাহাদুর, শফিউল্লাহ আনসারী ও এসএম সাদ্দাম হোসেন।

 

এসময় জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এমপি আশেক উল্লাহ রফিক, শাহ আলম চৌধুরী, আবদুল খালেক, নুরুল আবছার, অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম, অ্যাডভোকেট তাপস রক্ষিত, কাজী মোস্তাক আহমেদ শামীম, জিএম আবুল কাশেম, নুরুল আজিম কনক, অ্যাডভোকেট জিয়াউদ্দিন আহমদ, অ্যাডভোকেট নাসরিন সিদ্দীকা লীনা, বদরুল হাসান মিল্কী, দুলাল কান্তি দাশ, হাসান তারেক প্রমুখ।

এর আগে সকালে দলীয় কার্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

 

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪: