ই-পেপার | মঙ্গলবার , ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আজ পবিত্র ঈদুল ফিতর

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ পবিত্র ঈদুল ফিতর। এক মাস সিয়াম সাধনার পর আজ শনিবার সবচেয়ে বড় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপন করবেন বাংলাদেশের মুসলিমরা। যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য, উৎসাহ, আনন্দ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে উদযাপিত হবে দিনটি।

এর আগে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় দেশের আকাশে ১৪৪৪ হিজরি সনের শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়। গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক শেষে আজ দেশে ঈদ উদযাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সভাপতিত্বে এ বৈঠক হয়।

 

বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা সম্পর্কে সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়সমূহ, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে পর্যালোচনা করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে এবারের রমজান মাস ২৯ দিনেই শেষ হলো।

 

এদিকে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজধানীসহ দেশের সর্বত্রই ঈদের নামাজের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। জাতীয় ঈদগাহে মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে সকাল ৭টা থেকে পর্যায়ক্রমে পাঁচটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

 

জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় ঈদুল ফিতরের নামাজের জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। এই জামাতে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা, চিফ হুইপ, হুইপ, সংসদ সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীসহ এলাকার মুসল্লিরা অংশ নেবেন। এই জামাত সবার জন্য উন্মুক্ত। বুয়েট কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। তবে আবহাওয়া অনুকূলে না থাকলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদে তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বাংলাদেশ জমিয়তে আহলে হাদিসের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৭টায়।

 

এদিকে ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানও। যেখানে প্রতিবছর আল্লাহর দিদার লাভের আশায় দেশ-বিদেশ থেকে আগত লাখো মুসল্লি একত্রে নামাজ আদায় করেন। জামাতকে কেন্দ্র করে এরই মধ্যে মাঠের দাগ কাটা, মেহরাব ও দেয়ালে চুনকাম করা, ওজুখানা তৈরি, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতাসহ সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। জামাত নির্বিঘ্ন করতে থাকছে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

 

এবারের ঈদুল ফিতরে প্রায় দেড় কোটি মানুষ ঢাকা উত্তর, ঢাকা দক্ষিণ, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনসহ ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলা থেকে স্বজনদের কাছে যাবেন বলে জানিয়েছিল ঢাকার গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন শিপিং অ্যান্ড কমিউনিকেশন রিপোর্টার্স ফোরাম (এসসিআরএফ)। এসব মানুষের মধ্যে সড়কপথে ৬০ শতাংশ এবং ২০ শতাংশ করে নৌ ও রেলপথে যাবেন। এই হিসাবে সড়কপথের যাত্রীসংখ্যা প্রায় ৯০ লাখ।

 

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সরকারি ছুটি শুরু হয়ে গেছে। ঈদের সঙ্গে শবেকদরের একদিন এবং নির্বাহী আদেশে আরও একদিনের ছুটিসহ এবার সরকারি কর্মজীবীরা ছুটি পাচ্ছেন পাঁচ দিন। তবে এই ছুটির দিন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ভেদে ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে।

 

ডি .এন .নিউজ .এইচ .এম .সালাহ উদ্দীন কাদের