ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হজের খুতবা দেবেন শায়খ ড. ইউসুফ, তার সম্পর্কে কতটুকু জানেন?

ইসলাম, ডেস্ক

চলতি বছরের হজ পালিত হবে আগামী ২৭ জুন। এদিন ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানে হজের খুতবা দেবেন শায়খ ড. ইউসুফ বিন মুহাম্মদ বিন সাঈদ। মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীর তত্ত্বাবধায়ক বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজ এবার হজের খুতবার জন্য নতুন খতিব হিসেবে তাকে বাছাই করেছেন।

হজের খুতবার জন্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে মুসলিম বিশ্বে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন শায়খ ড. ইউসুফ বিন মুহাম্মদ বিন সাঈদ।

শায়খ ড. ইউসুফ বিন মুহাম্মদ সৌদি আরবের ইমাম মুহাম্মদ বিন সৌদ ইউনিভার্সিটিতে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ১৪১৫ হিজরিতে ইমাম মুহাম্মদ বিন সৌদ ইউনিভার্সিটিতে লেকচারার পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এছাড়াও তিনি জাতীয় পাবলিক এডুকেশন সিম্পোজিয়ামের সাইন্স কমিটির চেয়ারম্যান এবং ‘ভিশন অ্যান্ড অ্যাসপিরেশনস’-এর সদস্য ছিলেন।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণামূলক পরীক্ষা কমিটির সদস্য ছিলেন পাঁচ বছর। দুই বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইন্স গবেষণা ডিনশিপ কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন। এরপর ১৪১৮ থেকে ১৪৪১ হিজরি পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আকিদা ও তুলনামূলক ধর্মতত্ত্ব বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি পদের দায়িত্ব পালন করেন। ১৪১৯ হিজরিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপকের দায়িত্ব লাভ করেন।

১৪১৩ থেকে ১৪২৫ হিজরি পর্যন্ত তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আকিদা ও ধর্ম বিভাগের প্রধান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৪২৭ হিজরিতে তিনি ইমাম মুহাম্মদ বিন সৌদ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক হন।

শায়খ ইউসুফ রিয়াদের ইমাম তুর্কি বিন আবদুল্লাহ মসজিদে এবং রিয়াদের বিভিন্ন মসজিদের ভিতরে ও বাইরে অসংখ্য বক্তৃতা ও সেমিনারে অংশ নিয়েছেন। তিনি ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ইমাম ও মুবাল্লিগদের শিক্ষা-প্রচারণার কোর্সেও কাজ করেছেন। তিনি রিয়াদের কলেজ অফ ফান্ডামেন্টালস অফ রিলিজিয়ন থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেছেন।

এরপর তিনি ১৪১৫ হিজরিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন এবং এর জন্য একটি থিসিস লেখেন। তার গবেষণাপত্রের শিরোনাম ছিলো- আল মাসাইলুললাতি খালাফা ফিহা রাসুলুল্লাহি সাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আহলুল জাহিলিয়্যাতি লিল-ইমাম মুহাম্মদ বিন আব্দুল ওয়াহাব, দিরাসাতান ওয়া তাহকিকান ওয়া শারহান।

তিনি ১৪১৮ হিজরিতে পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। শায়খ ড. ইউসুফ বেশ কয়েকটি বৈজ্ঞানিক গবেষণাপত্র তত্ত্বাবধান করেছেন এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এর উপর আলোচনা করেছেন।

এই বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে রয়েছে ইমাম বিশ্ববিদ্যালয়, কিং সৌদ বিশ্ববিদ্যালয়, উম্মুল-কুরা বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় মদীনা মুনাওয়ারা, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধিভুক্ত গার্লস কলেজ, তৈয়্যবা বিশ্ববিদ্যালয়, দাম্মাম বিশ্ববিদ্যালয়, প্রিন্সেস নুরা বিনতে আবদুল রহমান বিশ্ববিদ্যালয়।

২০২০ সালে রাজকীয় ডিক্রি জারি করে তাকে সিনিয়র উলামা কাউন্সিলের সদস্য হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

 

সূত্র : আল আরাবিয়া