ই-পেপার | বুধবার , ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আইসিসির প্রধান প্রসিকিউটরের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রাশিয়ার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে অবস্থিত আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিটি) ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রসিকিউটর করিম আসাদ আহমেদ খানকে ওয়ান্টেড তালিকায় অন্তর্ভুক্তির পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ও ডাটাবেসের বরাত দিয়ে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি।

ব্রিটিশ আইনজীবী করিম আসাদ আহমেদ খান, যিনি করিম খান নামেই বেশি পরিচিত, চলতি বছর মার্চে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনকে গ্রেপ্তারে পরোয়ানা জারির আবেদন জানিয়েছিলেন। আবেদনে তিনি বলেছিলেন, রুশ সামরিক বাহিনী ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করার পর ইউক্রেনের অধিকৃত বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত শিশুকে রাশিয়া ও রাশিয়ার বাইরে বিভিন্ন দেশে পাচার করছে। যেহেতু পুতিনের নির্দেশেই ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করেছে রুশ বাহিনী, সুতরাং এই অপরাধের দায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের ওপরই বর্তায়।

তার এই আবেদন আমলে নিয়ে ২০ মার্চ পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন তোমোকো আকানে, রোজারিও সালভাতোরে আইতালা এবং সার্জিও জেরার্ডো উগালদে গোদিনেজ— আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের এই তিন বিচারকের বেঞ্চ।

ওই পরোয়ানার প্রতিক্রিয়ায় আইসিসির প্রধান প্রসিকিউটর ও বিচারকদের বিরুদ্ধে পাল্টা তদন্ত শুরু করে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি তদন্ত কমিটি। তদন্তটি রুশ ফৌজদারি আইনের ২৯৯ এবং ৩৬০ ধারায় করা হয়। এই দুই ধারা অনুযায়ী, নির্দোষ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ আনা এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ককে জটিল করার জন্য আন্তর্জাতিক সুরক্ষা উপভোগ করে বিদেশি রাষ্ট্রের প্রতিনিধিকে হয়রানি বা আক্রমণের অভিযোগের তদন্ত করে রুশ কমিটি।

‘তদন্তে করিম খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে,’ বলা হয় রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে।