ই-পেপার | বৃহস্পতিবার , ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কাতারের আমির বাংলাদেশে আসছেন কবে, শিগগিরই জানাবে দোহা

সিএনএন বাংলা২৪,ডেস্কঃ

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির বাংলাদেশ সফরের সম্ভাব্য তারিখ শিগগিরই ঢাকা‌কে জানাবে দোহা।

মঙ্গলবার (১৩ জুন) দোহায় দেশ‌টির পররাষ্ট্র সচিব ড. আহমাদ হাসান আল হাম্মাদির সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম। এ সময় কাতা‌রের আমির সফর নি‌য়ে আলোচনা হয়।

দোহার বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, বৈঠ‌কে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন যে, বাংলাদেশ কাতারের আমিরের আসন্ন সফরের বিষয়ে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। সফরটিকে তাৎপর্যপূর্ণ ও মহিমান্বিত করার লক্ষ্যে কাতারের আমির কর্তৃক বাংলাদেশে একটি পূর্ণাঙ্গ রাষ্ট্রীয় সফরের বিষয়ে তিনি গুরুত্বারোপ করেন। রাষ্ট্রদূত ও কাতারের পররাষ্ট্র সচিব আমিরের আসন্ন রাষ্ট্রীয় সফরের তারিখ নিয়ে আলোচনা করেন।

কাতারের পররাষ্ট্র সচিব জানান, আমিরের সঙ্গে সমন্বয় ক‌রে সফরের সম্ভাব্য তারিখ শিগগিরই জানানো হবে।

এছাড়াও আমিরের বাংলাদেশ সফরকালীন সময়ে দুই দেশের মধ্যে প্রক্রিয়াধীন সমঝোতা স্মারক ও চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয়ে আলোচনা ক‌রেন তারা। বৈঠ‌কে তারা বাংলাদেশ ও কাতারের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ক‌রেন।

রাষ্ট্রদূত বাংলা‌দে‌শের প্রধানমন্ত্রীর কাতারে দুটি সফল সফর আয়োজনে দূতাবাসকে সহযোগিতার জন্য পররাষ্ট্র সচিবকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। কাতারের পররাষ্ট্র সচিব প্রধানমন্ত্রীর একই বছর কাতারে পর পর দুটি সফরের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, এই সফরের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে।

কাতারে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিষয়ে আলোচনাকালে রাষ্ট্রদূত ভবিষ্যতে বাংলাদেশ হতে আরও বেশি দক্ষ ও আধাদক্ষ জনবল নিয়োগে গুরুত্ব আরোপ করেন। তি‌নি সম্প্রতি কাতারের শ্রমমন্ত্রীর সঙ্গে তার ফলপ্রসূ আলোচনার বিষয়টি উল্লেখ করেন। প‌রে তি‌নি বাংলাদেশ থেকে কাতারে আরও বেশি দক্ষ ও আধাদক্ষ জনবল নিয়োগের বিষয়ে কাতারের পররাষ্ট্র সচিবের সহযোগিতা কামনা করেন।

কাতারের পররাষ্ট্র সচিব কাতারের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অবদানের বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন যে, কাতার বাংলাদেশ হতে আরও বেশি দক্ষ ও আধাদক্ষ জনবল নিয়োগের বিষয়টি বিবেচনা করবে। পররাষ্ট্র সচিব অদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশে তার সফরের বিষয়েও রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা করেন।

কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া বিষয়ক বিভাগের পরিচালক অ্যাম্বাসেডর ইউসুফ বিন সুলতান ইউসুফ লারাম ও দূতাবাসের উপ-প্রধান মো. ওয়ালিউর রহমান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

 

এইচ এম কাদের,সিএনএন বাংলা২৪: